সিলেট নগরীর শাহপরাণে প্রতিবেশীর হামলায় গুরুতর আহত এক তরুণী

প্রকাশিত: ৩:৩৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৯, ২০২১

সিলেট নগরীর শাহপরাণে প্রতিবেশীর হামলায় গুরুতর আহত এক তরুণী

দিনরাত ডেস্ক : সিলেট নগরীর এসএমপি শাহপরাণ (রহ.) থানাধীন ইসলামাবাদ এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী মামুন খাঁন ও তাঁর সহযোগিদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন শিরিন আক্তার পান্না (২২) নামের এক তরুণী। গত ১৩ ডিসেম্বর আনুমানিক বেলা ১১টার দিকে ভিকটিমের বাড়িতে এঘটনা ঘটে। তবে, এঘটনায় এখনও কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

জানা যায়, শিরিন আক্তার পান্নার বসত বাড়ির সীমানায় প্রতিনিয়ত ময়লা ফেলে আসছেন মামুন খাঁন। এতে ময়লা না ফেলার জন্য বললে মামুন খাঁন উত্তেজিত হয়ে বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ করেন। ঘটনার দিন ময়লা দেখে কথা বললে মামুন খাঁনসহ তাঁর সহযোগিরা দেশীয় অস্ত্রসহ তার উপর হামলা চালায়। এসময় দা দিয়ে পান্নার মাথায় কুপ দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতে ভর্তি করা হয়।
শিরিন আক্তার পান্নার পরিবারের অভিযোগ, হামলাকারী মামুন খাঁন প্রতিনিয়ত তাদের বসত ঘরের আঙ্গিনায় ময়লা ফেলেন। তাকে ময়লা না ফেলার জন্য নিষেধ করা হলে বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ করেন। এমনকি শিরিন আক্তার পান্নাকে হত্যারও হুমকি দেন মামুন। ঘটনার দিন পান্না বসত বাড়ির আঙ্গিনায় ময়লা দেখে কথা বললে মামুন খাঁন উত্তেজিত হয়ে তার সহযোগিদের নিয়ে পান্নার উপর দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। একপর্যায়ে পান্নার মাথায় হত্যার উদ্দ্যেশ্যে কুপ মারে। এতে গুরুতর আহত হন পান্না। পরে তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এঘটনায় শিরিন আক্তার পান্নার মা বাদী হয়ে মামুন খাঁনকে প্রধান আসামী করে এসএমপি শাহপরাণ (রহ.) থানায় মামলা দায়ের করেন। তবে, এঘনায় এখনও পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে হতাশা প্রকাশ করা হয়।
এবিষয়ে এসএমপি শাহপরাণ (রহ.) থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আনিসুর রহমান জানান, ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

%d bloggers like this: