বেড়িবাঁধ নির্মাণে যারা অনিয়ম করেছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না- জগন্নাথপুরে পরিকল্পনা মন্ত্রী

প্রকাশিত: ১:৩৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৯, ২০২২

বেড়িবাঁধ নির্মাণে যারা অনিয়ম করেছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না- জগন্নাথপুরে পরিকল্পনা মন্ত্রী

হুমায়ূন কবীর ফরীদি, জগন্নাথপুর প্রতিনিধিঃ

 

পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান বলেছেন, এখন দোষারোপ করার সময় নয়।
হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণে যারা অনিয়ম ও গাফলতি করেছে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কারো বিরুদ্ধে দোষ প্রমানিত হলে ছাড় দেওয়া হবেনা। পানি উন্নয়ন বোর্ড ( পাউবো) এর কর্মকর্তা ও প্রশাসনের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরো বলেন, এখন ফসল উত্তোলন এর সময় তাই বাঁধ গুলো রক্ষাকল্পে যা যা করনিয় তা দ্রুত বয়বস্থা নিন। তিনি আরও বলেন, আমি জানি এক সপ্তাহ আগেও হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ গুলো ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এখন কিছুটা হলেও শংঙ্কা মুক্ত হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সংশ্লিষ্টদের কথা বলে ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ রক্ষায় দ্রুত অর্থ বরাদ্দের ব্যবস্থা করা হবে। ভবিষ্যতে আরও টেকসই বাঁধ নির্মাণ এর পরিকল্পনা করা হবে।
৯ ই এপ্রিল রোজ শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার নলুয়ার হাওর ও মইয়ার হাওরের ঝুঁকিপূর্ণ ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ পরিদর্শনকালে কৃষকদের সাথে মতবিনিময়ে উপরোক্ত কথা গুলো বলেছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান।
এসময় পরিকল্পনা মন্ত্রীর সাথে ছিলেন, সুনামগঞ্জের সুযোগ্য জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড এর নির্বাহী প্রকৌশলী সামসুদ্দোহা, উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ইসরানুল ইসলাম শমসের আলী, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সভাপতি আকমল হোসেন, সাধরন সম্পাদক হাজী মোঃ রেজাউল করিম রিজু, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাজেদুল ইসলাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ এর ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, চিলাউড়া *হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান মোঃ শহীদুল ইসলাম বকুল, সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হারুন রশীদ, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাইয়ুম ও সিরাজুল ইসলাম প্রমূখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

%d bloggers like this: