নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সিলেটের সভাপতি সুমি, সাধারন সম্পাদক মনিকা

প্রকাশিত: ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২২

নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সিলেটের সভাপতি সুমি, সাধারন সম্পাদক মনিকা

বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র-বিএনএসকে’র সিলেট বিভাগীয় কমিটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে সিলেটের একটি হোটেলের হলরুমে সংগঠনের সিলেট বিভাগীয় সাধারন সভা শেষে এ কমিটি ঘোষনা করা হয়। এতে সভাপতি হয়েছেন জিটিভি ও সারাবাংলার সিলেট প্রতিনিধি বিলকিস আক্তার সুমি ও সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন দৈনিক উত্তরপূর্বের সিনিয়র সাব এডিটর মনিকা ইসলাম।

সাধারন সভা শেষে সিলেটের সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে কমিটি ঘোষনা করেন নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও খ্যাতিমান সাংবাদিক নাসিমুন আরা হক মিনু। এ সময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক লিয়াকত শাহ ফরিদী, জেলা প্রেসক্লাব’র সিনিয়র সহ সভাপতি মঈন উদ্দিন ও ইমজা সভাপতি মঈন উদ্দিন মনজু। অতিথি হিসেবে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছিলেন- বিএনএসকে’র যুগ্ন সম্পাদক লতিফা আনসারী রুনা, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহনাজ সিদ্দিকা সোমা, নির্বাহী সদস্য শাহনাজ পারভীন এলিস ও সদস্য জাহিদা পারভেজ ছন্দা।
ঘোষিত কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- সহ-সভাপতি সাপ্তাহিক টেমস সুরমার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সুমা জায়গীরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলার চোখ’র হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি শারমিন সুলতানা পপি, কোষাধ্যক্ষ দৈনিক সুদিন’র সহকারী সম্পাদক ফাতেমা সুলতানা অন্যা, প্রচার সম্পাদক চ্যনেল এস’র সাংবাদিক রেহেনা সুলতানা, দপ্তর সম্পাদক নন্দিত সিলেট’র স্টাফ রিপোর্টার মাসুদা সিদ্দিকা রুহী। এছাড়া- কার্যকরী কমিটির সদস্য হয়েছেন গ্রাম বাংলার নির্বাহী সম্পাদক জাকিয়া সুলতানা মনি ও দৈনিক দিনরাতের স্টাফ রিপোর্টার হাবিবা আক্তার।
এর আগে মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র- বিএনএসকে’র সভাপতি ও খ্যাতিমান সাংবাদিক নাসিমুন আরা হক মিনু বলেছেন- সিলেটের নারী সমাজের অগ্রযাত্রায় নারী সাংবাদিকরা অগ্রনী ভুমিকা পালন করছেন। যেসব নারী সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে গ্রহন করেছেন তারা চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন- এরপরও সিলেটে সাংবাদিকতায় নারীদের অর্ন্তভুক্তির সংখ্যা কম। সিলেটের শিক্ষিত ও সাহসী নারীদের সাংবাদিকতায় অনুপ্রেরণা যোগাতে তিনি সিলেট বিভাগীয় নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের নির্বাচিত কমিটিকে অগ্রনী ভুমিকা রাখার আহবান জানান।
মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের সিলেট ব্যুরো প্রধান মঞ্জুর আহমদ, রিপোর্টার মাধব কর্মকার, কবি ও ছড়াকার ধ্রæব গৌতম, দৈনিক সুদিন’র সাংবাদিক ফাহিমা নীলা, সিলেট প্রতিনিদিন’র সাব এডিটর তানিয়া ইসলাম, দৈনিক একাত্তরের কথার সাব এডিটর মারিয়া আক্তার ময়না, দৈনিক স্বাধীন বাংলার সিলেট ব্যুরো রিপোর্টার ফাহিমা বেগম, প্রথমআলো বন্ধু সভার সদস্য ও ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক ফাবলিহা শাহ ফরিদী, নন্দিত সিলেট’র সাব এডিটর শামীমা আক্তার মিনু, সংবাদকর্মী তাহমিনা ইসলাম তমা।
মতবিনিময় সভায় সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী বলেন- নারীরা সাংবাদিকতায় এসে ভুমিকা রাখছেন এটা আমাদের জন্য গর্বের বিষয়। এজন্য আমাদের উচিত তাদের সুযোগকে আরো প্রসারিত করে দেওয়া। সিলেট জেলা প্রেসক্লাব’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক লিয়াকত শাহ ফরিদী বলেন- নারীদের সাংবাদিকতায় ভালো করতে হলে অবশ্যই যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। এজন্য নারীকে শিক্ষিত হওয়ার পাশাপাশি প্রশিক্ষনের মাধ্যমে নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তোলতে হবে। তবেই নারীরা সাংবাদিকতায় নারীরা নিজেদের অবস্থান আরো বেশি সুসংহত করতে পারবেন। সিলেট জেলা প্রেসক্লাব’র সিনিয়র সহ সভাপতি ও একাত্তরের কথার ডেপুটি এডিটর মঈন উদ্দিন বলেন- একজন নারীকে কঠোর পরিশ্রম করে প্রমান করতে হয় তিনি সাংবাদিক। এজন্য তাকে অনেক বাধা ডিঙাতে করতে হয়। তবে- সাংবাদিকতায় নারীদের যত বেশি অংশগ্রহন বাড়বে, তত বেশি সমৃদ্ধ হবে এ পেশা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

%d bloggers like this: